কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের অসমাপ্ত আত্মজীবনী – ১

কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের অসমাপ্ত আত্মজীবনী – ১

কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের অসমাপ্ত আত্মজীবনী / ইঁদুর মারার ওষুধ খেয়ে বিড়াল মারা গেছে!

ইঁদুর মারার ওষুধ খেয়ে বিড়াল মারা গেছে! বছর চারেক আগে কলকাতায় কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়, ৫/বি ডা. শরৎ ব্যানার্জি রোডের ঠিকানায় বিড়ালগুলোকে দেখতে গিয়ে দেখি অনেকগুলো বিড়াল! এত বিড়ালের খাবার জোটাতে পুপে হিমশিম খাচ্ছে।

ঢাকায় ফিরে ‘কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বিড়াল সংরক্ষণ কমিটি’ করে দিই। কুমারখালীর বীর মুক্তিযোদ্ধা সাত্তার ভাইয়ের সমর্থনে ও তাকে আহ্বায়ক করে ‘কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় বিড়াল সংরক্ষণ কমিটি’ করা হয়েছিলো, কিন্তু হঠাৎ করেই তিনি হজব্রত পালন শেষে মক্কা থেকে ফিরে এ পথে আর আসেন নি।

সুভাষের জন্মশতবার্ষিকীর বাংলাদেশ উৎসবের অনুষ্ঠানমালা সামনে এসে গেলে সুভাষদার বিড়ালের কথা মনে পড়লো। সম্প্রতি তাঁর বিড়ালগুলো মারা গেছে। দু’একটা ছোট বাচ্চা আছে। তারা মানুষের কাছে আসে না।

খুবই দুঃখজনক ঘটনা যে, বিড়ালগুলো মারা গেছে ইঁদুর মারার ওষুধ খেয়ে! বর্তমানে পুপে লেক রোডের পথের কুকুরদের জন্য খাবার রান্না করে। মানুষ আর কতটুকুই বা পারে! তুচ্ছ মানব, অহংকারী কবিকন্যা শ্রীমতী কৃষ্ণকলি রায় পুপে।

১৯.০৭.২০১৮

1 Comment

  1. পুপের জন্য ভালবাসা।

Leave a Reply