পিকাসোর আঁকা সমুদ্রের প্রাণী হিসাবে প্রেমিকা ‘মারি-থেরেস ওয়াল্টারে’র প্রতিকৃতি $৬৭.৫ মিলিয়নে বিক্রি হলো

পিকাসোর আঁকা সমুদ্রের প্রাণী হিসাবে প্রেমিকা ‘মারি-থেরেস ওয়াল্টারে’র প্রতিকৃতি $৬৭.৫ মিলিয়নে বিক্রি হলো

পাবলো পিকাসোর আঁকা প্রেমিকা ‘মারি-থেরেস ওয়াল্টারে’র সবচেয়ে কৌতূহল উদ্রেগকারী এই পেইন্টিং, যাতে তিনি একটি অক্টোপাসের মতো পা সমৃদ্ধ একটি সামুদ্রিক প্রাণী হিসাবে আবির্ভূত হন, সেই ছবিটি ৬৭.৫ মিলিয়ন ডলারে বিক্রি হয়েছে।

“Femme nue couchée” (“শুয়ে থাকা নগ্নিকা”) শিল্পকর্মটি মঙ্গলবার নিউ ইয়র্কের সোথেবি’স বিক্রয় নিলামে আত্মপ্রকাশ করে ৷ বিক্রয়ের আগে, নিলামকারী বলেছেন যে, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিক্রেতা ২০০৬ সালে সরাসরি পিকাসোর বংশধরদের কাছ থেকে কাজটি সংগ্রহ করেছিলেন। পিকাসো ১৯৭৩ সালে এবং ওয়াল্টার ১৯৭৭ সালে মারা যান।

মারি-থেরেস ওয়াল্টার পিকাসোর চার সন্তানের মধ্যে ‘মায়া’ নামে একটি কন্যার জন্ম দেন।

১৯৩২ সালের এপ্রিলে আঁকা এই কাজটি ওয়াল্টারকে নিয়ে তৈরি অনেকগুলোর মধ্যে একটি। যখন তারা দেখা করেন, মারির বয়স ছিল ১৭ বছর এবং পিকাসো ৪৫ বছর বয়সী; এরপর তিনি  রাশিয়ান-ইউক্রেনীয় নৃত্যশিল্পী ওলগা খোখলোভাকে বিয়ে করেছিলেন।

ওয়াল্টারকে নিয়ে পিকাসোর আঁকা প্রতিকৃতিগুলি অত্যন্ত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিলো। ১৯৩২ সালের কাজ “ফেমে অ্যাসিস প্রিস ডি’উন ফেনেত্রে (মারি-থেরেস),” গত বছর $১০৩.৪১ মিলিয়নে বিক্রি হয়েছে  এবং “নগ্ন, সবুজ পাতা এবং বক্ষ” বিক্রি হয়েছে  ২০১০ সালে রেকর্ড ১০৬.৫ মিলিয়ন ডলারে।

২০১১ সালে গ্যাগোসিয়ানের “পিকাসো এবং মারি-থেরেস: ল’আমোর ফাউ” এর মতো প্রদর্শনীর মাধ্যমেও এই জুটির পাথুরে রোম্যান্সকে আদর্শ করা হয়েছে, যেখানে মডেলের প্রায় ৪০টি চিত্রকর্ম, ভাস্কর্য, অঙ্কন এবং প্রিন্ট এবং টেট মডার্নের “পিকাসো:৯৩২” লাভ, ফেম, ট্র্যাজেডি” ২০১৮ সালে, যেটি সেই আবেশী বছরগুলির দিকে দৃষ্টি নিবদ্ধ করে, যেখানে তিনি  চিত্র সমন্বিত অনেক কাজ করেছেন। পিকাসো ১৯৩৬ সালের দিকে ফটোগ্রাফার ডোরা মার সাথে সম্পর্ক শুরু করেন, ওয়াল্টার এবং মার সাথে তার সম্পর্ক  ওভারল্যাপ করে এবং মার-ও তার শৈল্পিক বিষয়গুলির মধ্যে একজন হয়ে ওঠেন।

১৯৩৮ সালের পাবলো পিকাসোর “Femme au béret rouge-orange” ওয়াল্টারের পরবর্তী প্রতিকৃতি, যা তাদের সন্তানের জন্মের তিন বছর পরে আঁকা হয়েছিল এবং তখন  পিকাসো ফটোগ্রাফার ডোরা মার সাথে সম্পর্ক শুরু করেছিলেন। এই ছবিটি গত বছর ৪০ মিলিয়ন ডলারের বেশি দামে বিক্রি হয়েছিল।

নমুনা চিত্র।। প্পিকাসোর

পিকাসোর শিল্পী-দৃষ্টির মাধ্যমে, ওয়াল্টারকে ইন্দ্রিয়গ্রাহ্যভাবে দিবাস্বপ্নে দেখা, নীল রঙে সম্পূর্ণ নগ্ন, এবং আনুষ্ঠানিক পশমী পোশাকে জাহির করেছেন। প্রতিটি  কাজ তার সাহসী, বিমূর্ত শৈলীতে উজ্জ্বল। “Femme nue couchée”-এ তিনি সম্পূর্ণরূপে ‘সর্প ধূসর অঙ্গ সহ’ অন্য প্রজাতিতে রূপান্তরিত হন। ব্রুক ল্যাম্পলি, সোথেবি’স-এর গ্লোবাল ফাইন আর্ট সেলের চেয়ার এবং হেড, “ফেমে নিউ কাউচে” একে “ঐতিহ্য থেকে আমূল প্রস্থান” হিসাবে বর্ণনা করেছেন।

“এই আকর্ষণীয় পেইন্টিংটি একই সাথে মারি-থেরেসের জন্য শিল্পীর সীমাহীন আকাঙ্ক্ষার একটি গভীর গীতিকবিতা। ” তিনি বিক্রয়ের আগে প্রেস বিবৃতিতে বলেছিলেন, “তার পাখনার মতো, অবিরাম নমনীয় অঙ্গগুলির সাথে, প্রতিকৃতিটি মন্ত্রমুগ্ধ করে চলেছে। কারণ, এটি পিকাসোর ইমেজকে তার প্রতিভার চূড়ান্ত অভিব্যক্তি হিসাবে পুরোপুরি ক্যাপচার করে।”

সংবাদটি ১৮ মে ২০২২, বুধবার প্রকাশিত হয়।

ছবি (ব্যবহৃত ছবিগুলি নমুনাচিত্র হিসাবে ব্যবহৃত হয়েছে। মুল সংবাদের সাথে এদের সরাসরি যোগাযোগ না-ও থাকতে পারে।):
Daniel Capilla, CC BY-SA 4.0, via Wikimedia Commons
Post of Albania, Public domain, via Wikimedia Commons
Jacob Chayat, CC BY-SA 4.0, via Wikimedia Commons
Pablo Picasso, Public domain, via Wikimedia Commons

 

Leave a Reply